ফেসবুকে গলার ছবি ও বাংলাদেশ ক্রিকেট

ফেসবুকে গলার ছবি ও বাংলাদেশ ক্রিকেট, পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচের দিন

বিসিবির অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে একটি পোস্ট দেখে থমকে যান ক্রিকেট ভক্তরা। অভিষেক

হওয়া পেসার শহিদুল আলমের উইকেট নিয়ে পোস্টটি করা হয়েছে। সেখানে শহিদুলের চেহারা বোঝা গেলেও

একটা ‘কিন্তু’ রয়ে গেছে। বুদ্ধিমান ক্রিকেট অনুরাগীদের সেই ‘কিন্তু’-রহস্যটি উন্মোচন করতে বেশি

সময় লাগেনি। আরে, বাংলাদেশের ২০১৯ বিশ্বকাপের জার্সি গায়ে শহীদুল! আরও সচেতন ক্রিকেট

ভক্তরা দ্রুতই সেই জার্সির রহস্য আবিষ্কার করেন। ২০১৯ বিশ্বকাপে সাকিব আল হাসানের ছবি কেটে সেখানে

রাখা হয়েছে শহিদুলের মুখ!বিসিবির এই পোস্টের পর তোলপাড় শুরু হয়। পুরো বিষয়টির সঙ্গে বাংলাদেশের

ক্রিকেট যেভাবে চলছে তার একটা যোগসূত্র খুঁজে পেয়েছেন অনেকেই। সামাজিক যোগাযোগ

মাধ্যমে বইছে সমালোচনার ঝড়। বিভিন্ন ট্রল পেজে দেশের ক্রিকেট নিয়ে মজা করার বিষয় পাওয়া গেছে।

আরও নতুন নিউস পেতে আমাদের সাইট:allresult.xyz

ফেসবুকে গলার ছবি ও বাংলাদেশ ক্রিকেট

বাংলাদেশ ক্রিকেট এই মুহূর্তে সমালোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পারফরম্যান্স দেখে মনে হচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেটের অনেক সমস্যাই তুলে ধরেছে। বিসিবির বিভিন্ন কর্মকাণ্ড নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে ক্রিকেট ভক্তদের। এমন এক সময়ে যখন ক্রিকেটের ব্যবস্থাপনা ও কর্মকাণ্ডে নানা সংস্কারের দাবি উঠছে, তখন বিসিবির অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে পেসার শহিদুলের এই দাড়িওয়ালা ছবি আক্ষরিক অর্থেই বাংলাদেশের ক্রিকেট কার্যক্রমের প্রতীকী চিত্র। সোশ্যাল মিডিয়ার ট্রল, হাসি, কৌতুকের মাঝে অকথ্য সত্যটা বড় আকারে বেরিয়ে এসেছে—দেশে ক্রিকেট বলুন, মাঠে বলুন, কর্মকর্তাদের টেবিলে বলুন, অথবা প্রতিভাবানদের লালন-পালনে বলুন, কোথাও ভালো যাচ্ছে না।সোশ্যাল মিডিয়ার যুগ। ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, টুইটার—মানুষের দৈনন্দিন জীবনের অংশ। আসল বিষয়টি হল ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে সক্রিয় উপস্থিতি ছাড়া জনগণের কাছে পৌঁছানো সম্ভব নয়।

গণমাধ্যম এখন সামাজিক মিডিয়া নির্ভর

ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মগুলিও ব্যক্তিদের দ্বারা ভাগ করা হচ্ছে। খেলাধুলায় সোশ্যাল মিডিয়ার প্রয়োজনীয়তা আরও বেশি। ব্যবসা-বাণিজ্যে; সাধারণ মানুষ ফেইসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রামের সাথে জড়িত, মার্কেটিং এর একটি বড় অংশ এগুলোর মাধ্যমে। ক্রীড়া জগতে শুধু ক্রীড়া সংস্থাই নয়, বিভিন্ন ক্লাবও এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাদের ভক্তদের সম্পৃক্ত ও সংগঠিত করে। খেলোয়াড়রা তাদের দৈনন্দিন কাজকর্ম, বিভিন্ন চিন্তাভাবনা তাদের ফেসবুক ও টুইটারে শেয়ার করছেন। বিশ্বের বড় বড় ক্লাবগুলো এর মাধ্যমে তাদের ভক্তদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে।বাংলাদেশের খেলাধুলায় অবশ্য এর বেশি কিছু নেই। দেশের খুব কম স্পোর্টস ফেডারেশন এবং ক্লাব সোশ্যাল মিডিয়ায় নিয়মিত। আর যা-ই হোক, ভুল ও অপ্রয়োজনীয় পোস্টের মধ্যেই সীমাবদ্ধ। এর সঙ্গে নতুন যোগ হয়েছে ‘গলা ছবি’।ক্রিকেট বোর্ড বাংলাদেশের সবচেয়ে ধনী ক্রীড়া সংস্থা। ক্রিকেট সংগঠকরা প্রায়ই গর্ব করেন যে, বিসিবির হাজার হাজার কোটি টাকা ব্যাংকে জমা রয়েছে।

প্রায়ই বলা হয় বিসিবি বিশ্বের এক নম্বর

‘ধনী’ ক্রিকেট বোর্ড। কিন্তু বাকি কার্যক্রম বাদ দিলেও তাদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিসিবির বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে আঘাত করলে যে দুর্দশা প্রকাশ পায় তার সঙ্গে মেলানো যায় না।সোশ্যাল মিডিয়া এখন খবরের বড় উৎস। সাংবাদিকরা এখন সারা বিশ্বের ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম থেকে খবর সংগ্রহ করে। কিন্তু বাংলাদেশের হাতে গোনা কয়েকটি ক্রীড়া ফেডারেশনের সোশ্যাল মিডিয়া পেজে পর্যাপ্ত তথ্য তো দূরে থাক, সাধারণ তথ্যও পাওয়া দুষ্কর। ক্রিকেটে একমাত্র টেস্ট খেলা দেশ আইসিসির অধিভুক্ত সদস্য দেশগুলোর ফেসবুক ও টুইটার পেজের সঙ্গে বিসিবি পেজগুলোর তুলনা করা হতাশাজনক। এটা বিশ্বাস করা কঠিন যে বিসিবির ফেসবুক এবং টুইটার লক্ষ লক্ষ ফলোয়ার থাকা সত্ত্বেও এতটা প্রাণহীন হতে পারে। বাংলাদেশ দল বিদেশে খেলতে গেলে বিসিবির টুইটার ও ফেসবুকে মনে হয় গভীর ঘুমে তলিয়ে যায়। ক্রিকেট দলের কার্যক্রমের ভালো কোনো ছবি বা ভিডিও নেই। তবে প্রতিবেশী ভারত বা পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের ফেসবুক বা টুইটার পেজগুলো অনেক বেশি সমৃদ্ধ।

 

About admin

Check Also

দুই ক্ষেত্রে বাংলাদেশ তুরস্কের সম্পর্কের পরিবর্তন

দুই ক্ষেত্রে বাংলাদেশ তুরস্কের সম্পর্কের পরিবর্তন

দুই ক্ষেত্রে বাংলাদেশ তুরস্কের সম্পর্কের পরিবর্তন, বাংলাদেশে নিযুক্ত তুরস্কের রাষ্ট্রদূত মোস্তফা ওসমান তুরান বলেন, সাম্প্রতিক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *